ওয়ালটনের বিরুদ্ধেও আইসিটি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করা যায়

হারুন উর রশীদ: আইসিটি আইনের ৫৭ ধারায় ওয়ালটনের বিরুদ্ধেও মামলায় কোনো বাধা আছে বলে আমার মনে হয়না। কারণ আইনটি এতই ‘উদার’ যে এখানে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন বা অনুভূতিতে আঘাত লাগার কোনো সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা বা সীমানা নাই। সুতরাং কেউ যদি মনে করেন ওয়ালটনের ওয়েবসাইটে বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক বিন্যাসে প্রকাশিত বা সম্প্রচারিত কিছু তার মন , অনুভূতি…

প্যান্টের পর কি আন্ডারওয়্যার চুরির মামলা!

হারুন উর রশীদ: আজ সোমবার (২৩.০১.১৭) সকালেই আমি আদালতে চলে যাই। বাংলাদেশ প্রতিদিন এবং একুশে টেলিভিশনের সাভার-আশুলিয়া প্রতিনিধি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার মামলার জামিন আবেদনের শুনানি হবে। সকাল ১০টায় আদালতে গিয়ে দেখি নাজমুলের আইনজীবী তুহিন হাওলাদার হাজির। এসেছেন নাজমুলের ভাই এবং বোন। তাদের চেহারায় উদ্বেগ উৎকন্ঠার ছাপ । মুখে প্রশ্ন জামিন…

পর্ন দেখতে বাধা নেই, প্রচারে বাধা!

হারুন উর রশীদ: যারা পর্ন সাইটে প্রবেশ করবেন তাদের নাম প্রকাশ করা হবেনা। তবে যারা পর্ন ছাড়াবেন বা পর্ন সাইট চালাবেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর এই ব্যবস্থা হলো সাইট ও লিংক বন্ধ করা। কিন্তু এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন এখনো হাতে পাননি ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী তারানা হালিম। কিন্তু তিনি স্পষ্ট করেননি পর্ন সাইটে যারা প্রবেশ…

অবশেষে ধর্ষিতা নারীর মুখ অস্পষ্ট করলো বিবিসি বাংলা

হারুন উর রশীদ: শেষ পর্যন্ত ১৮ ঘন্টা পর বিবিসি বাংলা ধর্ষিতা রোহিঙ্গা নারী ও তার শিশু সন্তানের মুখ অস্পষ্ট করে দিয়েছে। ওই নারীর অন্য একটি ছবি সরিয়ে নিয়েছে। রবিবার(০৪.১২.২০১৬) রাতে ‘আমার সামনেই হত্যা করা হয় বাবা ও স্বামীকে‘- এই শিরোনামে প্রকাশিত খবরে সরাসরি ধর্ষিতা ও তার শিশু সন্তানের ছবি প্রকাশ করে বিবিসি বাংলা। এনিয়ে সামাজিক…

ধর্ষিতা নারীর ছবি ও পরিচয় প্রকাশ করল বিবিসি বাংলা!

হারুন উর রশীদ: মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ থেকে হত্যা আর নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা এক ধর্ষিতা রোহিঙ্গা নারীর ছবি প্রকাশ করেছে বিবিসি বাংলা তাদের অনলাইন সংস্করণে। রবিবার রাত ১০টার পর তারা প্রতিবেদনসহ ছবিটি প্রকাশ করে। ‘আমার সামনেই হত্যা করা হয় বাবা ও স্বামীকে’– শিরোনামে প্রকাশিত খবরে ওই নারীর নামসহ দু’টি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। একটি ছবিতে…

রোজিনা যা করেছে আমি তা করতাম না: অন্বেষা ব্যানার্জী

হারুন উর রশীদ: কোলকাতার ‘এই সময়’-এর সাংবাদিক অন্বেষা ব্যানার্জী যারপরনাই অবাক হয়েছেন, যখন শুনছেন যে তার ড্রাফট (লেখা) করা রিপোর্ট বাংলাদেশের ‘প্রথম আলো’ উপসম্পাদকীয় হিসেবে ছেপেছে। তিনি জানিয়েছেন, প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম এবং তিনি মার্কিন নির্বাচনের সময় একই সঙ্গে ছিলেন। প্রথম আলোর রোজিনা এবং তিনি তথ্য শেয়ার করতেন। কিন্তু রোজিনা যে তার(অন্বেষা) লেখাই প্রায়…