আ.লীগের সম্মেলন,৪৫০ টাকার প্যাকেট এবং পাটিগণিত

14799989_10202228220904803_1288959503_o
হারুন উর রশীদ:
প্যাকেট নিয়ে আসলে আলোচনার সময় এখন নয়। এখন আলোচনা, কে হবেন শেখ হাসিনার উত্তরসূরী? শেখ হাসিনার বাইরে বঙ্গবন্ধু পরিবারের নতুন কেউ কি আসছেন আওয়ামী রাজনীতির নেতৃত্বে? আর কে হবেন সাধারণ সম্পাদক। সৈয়দ আশরাফই থাকছেন? না কোট-টাই পরা ওবায়দুল কাদের হাসবেন এবার! এসব জানতে আরো অপেক্ষা করতে হবে। সেই সময়টা বেশি নয় , ঘন্টার হিসেবেই বলা যায়।
কিন্তু এরইমধ্যে যা আমাদের জানা হয়ে গেছে তা নিয়ে একটু আলোচনার জন্যই ৪৫০ টাকার প্যাকেট নিয়ে আমার এই দৌড়-ঝাঁপ। আমি আসলে পেটুক বলেই হয়তো সবাই যখন রাজনৈতিক আলোচনায় ব্যস্ত, কলামিস্টরা আওয়ামী রাজনীতির অতীত, বর্তমান আর ভবিষ্যৎ নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন, তখন আমি আছি খাবারের প্যাকেট নিয়ে। মানে আওয়ামী লীগের দু’দিনের সম্মেলনে যে খাবার দেয়া হচ্ছে তার প্যাকেট নিয়ে। শুধু প্যাকেট নয়, প্রতি প্যাকেট খাবারের খরচ ৪৫০ টাকা নিয়ে।

বীজগণিত নয়, পাটিগণিত
গণিতের হিসাব নিয়ে বসেছি। সেই হিসাব দেয়ার আগে আরো একটি তথ্য জানিয়ে দেই। তাহলো দুই দিনের সম্মেলনে মোট খবারের প্যাকেট অর্ডার হয়েছে ৫০ হাজার। উদ্বোধনী দিনে ৩৫ হাজার আর সমাপনী দিনে ১৫ হাজার। শুধু দাম হিসেব করলেই এই ৫০ হাজার প্যাকেট খবারের দাম ২ কোটি ২৫ লাখ টাকা। খবারতো আর হেঁটে আসবেনা, পরিবহণ খরচ আছে। সেটা কতো হবে বুঝে উঠতে পারছিনা। যদি ধরে নিই ৪৫০ টাকার মধ্যেই সব খরচ তাহলে আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বাকি সব আয়োজনের খরচ মাত্র ৪০ লাখ টাকা! কারণ সম্মেলনের খরচের বাজেট আওয়ামী লীগ যা ঘোষণা করেছে তা হলো ২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা মাত্র। পরে আর এই বাজেট বড়ানো হয়েছে বলেও শুনিনি।sohrawardi-uddan-1420161022172100
আমার ইচ্ছে জেগেছিলো এই খাবার যদি একটু চেখে দেখতে পারতাম! উদ্দেশ্য মহৎ। তাহলে বুঝতে পারতাম ৪৫০ টাকার প্যাকেটের আসল দাম কতো। যারা সম্মেলন কাভার করতে গেছেন তাদের কয়েকজন পরিচিত সাংবাদিকের কাছে আমি জানতে চেয়েছি, ভাই খেয়েছেন? তারা গোমড়া মুখে জবাব দেন, না। খেয়েছেন এমন কাউকে পেলে হয়তো জানতে পারতাম প্যাকেটে কি কি ছিলো।

মেন্যুর অংক

তা যখন জানতে পারলামনা তারপরও আরেকটি উপায় আছে। সম্মেলনের খাদ্য উপকমিটি আগেই মেন্যু জানিয়েছিলো। সেটা এবার দেখা যাক-

তাদের ঘোষণা অনুযায়ী উদ্বোধনী দিনে দুপরের মেন্যুতে আছে-মোরগ পোলাও, ফিরনি, সফট ড্রিঙ্কস, পানি ( বোতলজাত) এবং পান ও জর্দ্দা। রাতে কাচ্চি বিরিয়ানি ও পরের দিন দুপুরের জন্যও কাচ্চি বিরিয়ানির আয়োজন । প্যাকেটজাত খাবার সরবরাহের দায়িত্ব পালন করছে তিনটি ক্যাটারিং কোম্পানি- সোনারগাঁও ক্যাটারিং, ইকবাল ক্যাটারিং এবং সর্দার ক্যাটারিং।
আমার ধারণা যা মেন্যু তাই যদি শেষ পর্যন্ত খাওয়ানো হয়ে থাকে তাহলে ৪৫০ না ৫০০টাকাই হবে প্রতি প্যাকেট। হয়তো ক্যাটারােররা আওয়ামী লীগের সম্মেলন বলে একটু ছাড় দিয়েছেন। আর খবারের মান ভালোই ছিলো বলে মনে হয়। কারণ তেমন কিছু নয় খাবার নিয়ে টুক টাক কাড়াকাড়ির খবর পাওয়া গেছে। কেউ পেয়েছেন পাঁচ প্যাকেট আবার কেউ পাননি। খাবার ভালো না হলে কেউ কি খাবার নিয়ে কাড়াকাড়ি করে! এটা হয়তো বিতরণকারীদের সমস্যা।

অংক মিলাতে পারছিনা
কিন্তু আমার সমস্যা অন্য জায়গায়। আমি হিসাব মিলাতে পারছিনা। গণিতে বরাবারের কাঁচা বলেই হয়তো এরকম হচ্ছে। আর তা হলো ২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা বাজেটের বলতে গেলে পুরাটাই চলে গেলো খাবার প্যাকেটে। তাহলে সম্মেলনের বাকি খরচের টাকা কোথা থেকে এলো? আপনারা কেউ হিসাব মেলাতে পারছেন? পারলে আমাকে খবর দেবেন প্লিজ।
কলাবাগান, ঢাকা
২২.১০.২০১৬

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s